শালকের জালে বায়ার্নের ৮ গোল

স্পোর্টস ডেস্ক : আগের মৌসুমের মত এই মৌসুমেও দাপুটেভাবে শুরু করলো বায়ার্ন মিউনিখ। গত মৌসুমে ট্রেবল (চ্যাম্পিয়নস লিগ, বুন্দেসলিগা ও জার্মান কাপ) জিতেছিল তারা। এবার মৌসুমের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই শালকের জালে গোল উৎসব করেছে বায়ার্ন। সের্গে নাব্রির হ্যাটট্রিকে হ্যানসি ফ্লিকের শিষ্যরা রয়্যাল ব্লুজদের উড়িয়ে দিয়েছে ৮-০ গোলে। গত মৌসুমেও আট গোলের জয় পেয়েছিল জার্মান জায়ান্টরা।

২০১৯/২০ মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে বার্সেলোনার মতো শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে বায়ার্ন জিতেছিল ৮-২ গোলে। সেবার তারা ইউরোপ সেরার মুকুট পরেছিল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে। এদিন ম্যাচের ব্যবধান বড় হতে পারতো আরও। বেশ কিছু দারুণ সেভ করেছেন শালকে গোলরক্ষক লার্ফ ফাহরমান।

বারপোস্টে লেগেও ফিরে এসেছে। যদিও শুরুতেই পিছিয়ে পড়তে পারতো বায়ার্ন। প্রথম মিনিটেই গন্সালো পেকেইন্সিয়ার শট দারুণ দক্ষতায় ফিরিয়ে দেন বায়ার্ন গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়ার। চতুর্থ মিনিটেই জোরালো এক শটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ন্যাব্রি। ১৯তম ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গোরেটস্কা। ৩১তম মিনিটে স্পট কিক থেকে গোল পান লেভানদোভস্কি।

ডি-বক্সের মধ্যে তাকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ৩-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধে প্রতিপক্ষকে আরও চেপে ধরে বায়ার্ন। ১৪ মিনিটের মধ্যেই দুটি গোল করে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ন্যাব্রি। এরপর তাদের সঙ্গে যোগ দেন মুলার, সানে ও ১৭ বছর বয়সী মুসিয়ালাও।

ফলে ৮-০ গোলের বিশাল জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। এ নিয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ২২ ম্যাচ অপরাজিত বাভারিয়ানরা। বায়ার্ন শেষ ম্যাচ হেরেছিল গত বছরের ৭ ডিসেম্বর, বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখের মাঠে। এরপর থেকে টানা ৩১ ম্যাচ অপরাজিত বায়ার্ন। যার মধ্যে ৩০ জয়ের পাশাপাশি আছে এক ড্র।